NAVIGATION MENU

সরিষাবাড়ীতে ভ্যান চালককে পিটিয়ে হত্যা


জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আলমগীর হোসেন (৪০) নামে এক ভ্যান চালককে পিটিয়ে হত্যা করেছে নিহতের  চাচাতো ভাইয়েরা।  

শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) দুপুরে নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় উপজেলার আওনা ইউনিয়নের কুড়ালিয়াপটল গ্রামে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

নিহত আলমগীর হোসেন ওই গ্রামের মৃত ঈসমাইল হোসেনের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আলমগীর হোসেন ভ্যানগাড়ি চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে ভ্যানগাড়িতে তার চাচাতো ভাই একই গ্রামের আলাউদ্দিনের ছেলে আব্দুর রহিমের গরুর খড় বহন করার কথা ছিল। খড় নিতে দেরি হওয়ায় আব্দুর রহিম ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। এ নিয়ে সন্ধ্যার দিকে আলমগীর ও রহিমের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে উভয়ের মধ্যে হাতাহাতি চললে আব্দুর রহিম, তার ভাই শুকুর মাহমুদ ও রঞ্জুসহ কয়েকজন মিলে আলমগীরকে লাঠি দিয়ে এলোপাথারী পেটায়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হলে লাশ ফেলে চাচাতো ভাইয়েরা সবাই পালিয়ে যায়।

এদিকে ঘটনার প্রায় ২০ ঘণ্টা পর খবর পায় পুলিশ। বিষয়টি সারারাত ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা চললেও তারাকান্দি তদন্তকেন্দ্রের পুলিশ খবর পেয়ে শুক্রবার দুপুরে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ আবু মো. ফজলুল করীম বলেন, ঝগড়ার ঘটনা থেকেই প্রতিপক্ষরা তাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। ঘটনা জানা যায়নি বলেই লাশ উদ্ধারে দেরি হয়েছে।

লাশ ময়না তদন্তের জন্য জেলা মর্গে পাঠানো হচ্ছে। এ ঘটনায় কাউকে আটক করা না হলেও অভিযান অব্যাহত ও মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।

এস এ/ওআ