NAVIGATION MENU

নিষিদ্ধ কাটিয়ে অবশেষে ৫ দিন পর এলো পেঁয়াজ


ভারত সীমান্তে পাঁচ দিন ধরে আটকে থাকা পেঁয়াজের চালান বাংলাদেশের ভোমরা ও হিলি স্থলবন্দর দিয়ে প্রবেশ করতে শুরু করেছে। শনিবার বিকেল সোয়া ৩টায় পেঁয়াজ নিয়ে ভারতীয় ট্রাকগুলো হিলি বন্দরের পানামা পোর্টে প্রবেশ করে।

তবে ভারতের পেট্রাপোলে বেশ কিছু পেঁয়াজবাহী ট্রাক থাকলেও বাংলাদেশে আসেনি। এদিকে তিন মাস পর মায়ানমার থেকে ৩০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ টেকনাফ স্থলবন্দরে এসে পৌঁছেছে।

শুক্রবার বিকেলে দুটি নৌকায় ৩০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ টেকনাফ স্থলবন্দরে এসে পৌঁছায়। তবে আমদানিকৃত এই পেয়াঁজ আজ শনিবার ট্রাকবোঝাই করে দেশের বিভিন্ন স্থানে পাঠানো হয়।

টেকনাফ স্থলবন্দরের ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, তিন মাস পর মায়ানমার থেকে শুক্রবার বিকেলে দুটি ট্রলারে করে ৩০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ এসেছে। সংকট মোকাবিলায় ব্যবসায়ীদের পেয়াঁজের আমদানি বাড়াতে উৎসাহিত করা হচ্ছে। 

হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ জানান, শুধুমাত্র গত ১৪ সেপ্টেম্বরের আগে এলসি করা পেঁয়াজ ভারত সরকার রপ্তানির অনুমতি দিয়েছে। এ কারণে ২০০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ শনিবার হিলি স্থলবন্দর দিয়ে দেশে আমদানি হচ্ছে।

গত ৫ দিন ধরে সীমান্তে আটকে থাকার কারণে কিছু পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে গেছে। এতে আমরা আর্থিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি। আশা করছি বাকী ১০ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ পর্যায়ক্রমে আমদানি করা হবে।

এদিকে শুক্রবার রাতে ভারতের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় রপ্তানি বন্ধের আগে সীমান্তে আটকে থাকা পেঁয়াজ বাংলাদেশে প্রবেশের অনুমতি দেয়। ফলে শনিবার থেকে পেঁয়াজের ট্রাক বাংলাদেশে ঢুকছে।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর ভারত সরকার অভ্যন্তরীণ বাজারে সংকট ও মূল্যবৃদ্ধির কারন দেখিয়ে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। এতে বন্দরের ভারত অংশে ২৫০-৩০০ পেঁয়াজ বোঝাই ভারতীয় ট্রাক আটকা পড়ে।

এস এস