NAVIGATION MENU

দেশে ভারতীয় পেঁয়াজ ঢুকতে শুরু করেছে


বিভিন্ন স্থলবন্দরে আটকে থাকা ভারতীয় পেঁয়াজভর্তি ট্রাক অবশেষে দেশে ঢুকতে শুরু করেছে। এরইমধ্যে ভারত থেকে দেশে ঢুকছে প্রায় দুইশ টন পেঁয়াজবাহী সাতটি ট্রাক।

পাঁচদিন বন্দরে আটকে থাকার পর শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনামসজিদ ও সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর দিয়ে ঢুকতে শুরু করে পেঁয়াজের ট্রাক। সোনামসজিদ দিয়ে দুপুর ১২টা পর্যন্ত সাতটি ট্রাকে ১৯৯ টন পেঁয়াজ দেশে ঢুকেছে।  

ট্রাক চালকরা জানান, এখনও ভারতের বন্দরে তিনশ'র বেশি ট্রাক আটকে আছে। কয়েকদিন ট্রাকের পেঁয়াজ আটকে থাকায় গরমে নষ্ট হয়ে যাওয়ার শঙ্কা করছেন পাইকাররা।

এদিকে, হিলি ও বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়েও ভারতীয় পেঁয়াজের ট্রাক প্রবেশের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। গত ১৪ সেপ্টেম্বর ভারত সরকার অভ্যন্তরীণ বাজারে সংকট ও মূল্যবৃদ্ধির কারণে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। নিষেধাজ্ঞার কারণে ভারতের সীমান্তে আটকে থাকা পেঁয়াজবোঝাই কয়েকশ ট্রাক আটকে যায়। পরে ১৫ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশে প্রবেশের অনুমতি পায় ট্রাকগুলো।

উল্লেখ্য, সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে অভ্যন্তরীণ চাহিদা বিপরীতে যোগান ঠিক রাখতে ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়। ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করেছে এমন ঘোষণা আসতে না আসতেই অস্থির হয়ে উঠে দেশের পেঁয়াজের বাজার। এক রাতের ব্যবধানে রাজধানীর আড়ৎগুলোতে কেজিপ্রতি ৩০ টাকা বেড়ে যায় পেঁয়াজের দাম। প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হয় ৮০ টাকা দরে। আর ভারতীয় পেঁয়াজের দাম বাড়ে কেজিতে ২০ টাকা পর্যন্ত। প্রতিকেজি বিক্রি হয় ৫৫ থেকে ৬০ টাকায়। অনেক আড়তদার আবার বিক্রিও বন্ধ করে দেন।

সিবি/এডিবি