NAVIGATION MENU

ঢেউয়ের তালে তালে নাচছে সৈকত


কক্সবাজারে শুরু হলো চার দিনের আন্তর্জাতিক দ্বিবার্ষিক-বার্ষিক নৃত্য উৎসব ‘ওশান ডান্স ফেস্টিভ্যাল-২০১৯’। প্রথমবারের মতো আয়োজিত এই উৎসবে অংশ নিচ্ছে ১৫টি দেশের নৃত্যশিল্পী, গবেষক, শিক্ষক ও কোরিওগ্রাফাররা।

এশিয়া প্যাসিফিকের বাংলাদেশ শাখা নৃত্যযোগের উদ্যোগে এই উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে। এই উৎসবের বিষয়বস্তু 'দূরত্বের সেতুবন্ধন'। শুক্রবার সকালে কক্সবাজারের মারমেড ইকো রিসোর্টে শুরু হয় চার দিনের আন্তর্জাতিক এই নৃত্য উৎসব। 

ঢেউয়ের তালে তালে নাচছে সৈকত, বাজছে নূপুর। নূপুরের নিক্বণে মুগ্ধ পর্যটন শহর কক্সবাজার। সমুদ্রের জলরাশি আর স্নিগ্ধ বাতাসে ভেসে বেড়াল মণিপুরী শিল্পীদের পুঙের তাল। সঙ্গে ছিল বাংলার ঢোলের বাদন। আর এভাবেই শুরু হল চার দিনের আন্তর্জাতিক দ্বিবার্ষিক-বার্ষিক নৃত্য উৎসব ‘ওশান ডান্স ফেস্টিভ্যাল-২০১৯’।

এশিয়ার ১৫টি দেশের দুই শতাধিক নৃত্যশিল্পী, শিক্ষক, গবেষক ও কোরিওগ্রাফারের অংশগ্রহণ করে এ উৎসবে। চার দিনের উৎসবের প্রথম দিন সকাল থেকেই ছিল বিষয়ভিত্তিক বক্তব্যের উপস্থাপন, কর্মশালা ও সেমিনার।

বিকালে কক্স কার্নিভ্যাল মিলনায়তনে শুরু হয় প্রথমদিনের নৃত্য পরিবেশনার মূল আয়োজন। প্রধান অতিথি হিসেবে পরিবেশনার উদ্বোধন করেন সংস্কৃতিবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ। তিনি বলেন, এ উৎসব দেশ ও সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের জন্য আনন্দের। এটা যেন নিয়মিত হয় আমরা সবাই মিলে সেই চেষ্টা করব।

অনুষ্ঠান শুরুতেই ত্রিকোণ কানেকটিভিটিজ পরিবেশনা দিয়ে মাতিয়ে রাখে যুক্তরাষ্ট্রের অনন্যা ডান্স থিয়েটার। এরপর বাংলাদেশের সাধনার শিল্পীরা পরিবেশন করেন আয় আমাদের অঙ্গনে শীর্ষক পরিবেশনা।

সন্ধ্যায় কক্সবাজার কারনিভালে ছিল নির্বাচিত তারকা শিল্পী ও প্রতিশ্রুতিশীল তরুণ শিল্পীদের পরিবেশনা। খ্যাতিমান শিল্পীদের একক প্রযোজনার পাশাপাশি দ্যুতি ছড়িয়েছে যৌথ পরিবেশনাও।

সিবি/এমআইআর

আজকের বাংলাদেশপোস্টের বিনোদন সংবাদ পেতে এখানে ক্লিক করুন